ইসলামী ব্যাংক প্রবাসী লোন পদ্ধতি 2023

ইসলামী ব্যাংক প্রবাসী লোন পদ্ধতি – আমরা জানি বাংলাদেশের জিডিপি তে সবচেয়ে বেশি অবদান রাখেন প্রবাসী রা। তারা কিছুদিন রেমিটেন্স পাঠানো বন্ধ করে রাখলে আমাদের পুরো দেশটাই অচল হয়ে পরে। আর আমাদের দেশের কর্মসংস্তান এতটাই কম যে আমাদের দেশের ছেলেরা ছোট থেকে ভেবেই রাখে তারা বড় হয়ে দেশের বাহিরে প্রবাসে যাবে।

আরও পড়ুন গ্রামে বাড়ি করার জন্য ব্যাংক লোন

কিন্তু অনেকে আছেন যে ভিসা চলে এসেছে কিন্তু টাকার জন্য যেতে পারছেন না তাদের জন্যই ইসলামী ব্যাংক বেবস্তা করেছে প্রবাসী লোনের। ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশের অন্যতম সেরা একটি ব্যাংক তাদের সুন্দর শরীয়ত সম্মত ব্যাংকিং প্রসেস-এর জন্যে। 

আরও পড়ুন প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক লোন অনলাইন আবেদন করার নিয়ম

আজকে আমরা ইসলামী ব্যাংক প্রবাসী লোন পদ্ধতি সম্পর্কে জানতে পারব এবং এই বিষয়ে যত ধরনের প্রশ্ন আছে সকল প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব। 

ইসলামী ব্যাংক প্রবাসী লোন পদ্ধতি যারা পাবেন

ইসলামী ব্যাংক প্রবাসী লোন পদ্ধতি 2023
  • আপনার একটি বৈধ ভিসা রেডি হয়ে আছে তখন যদি আপনি ইসলামী ব্যাংক প্রবাসী লোনের জন্য আবেদন করেন তাহলে আপনি খুব সহজেই লোন পেয়ে যাবেন। তবে হ্যাঁ আপনার অন্যান্য সকল কাগজপত্রও ঠিক থাকা লাগবে।
  • ইসলামী ব্যাংকে আপনার একটি অ্যাকাউন্ট আছে আর সেই অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে যদি আপনি নিয়মিত লেনদেন করে থাকেন আর এখন প্রবাসে যেতে চান তাহলে তারা আপনাকে লোন দিতে আগ্রহ প্রকাশ করবে যেহেতু আপনি তাদের ব্যাংকে রেগুলার যাতায়াত করেন।
  • এছারাও আপনি যদি ইতি মধ্যে প্রবাসে থাকেন আর আপনার বাড়িতে আপনার পরিবারের একটি লোন প্রয়োজন হয় তাহলে ইসলামী ব্যাংক আপনাকে লোন দিবে একেত্রে হয়তো ইসলামী ব্যাংক-এ টাকা আধান – প্রধান করার শর্ত দিতে পারে।  

তবে হ্যাঁ আপনি যেই ভাবেই লোন নেন না কেনো আপনার অবশ্যই দু’জন গ্যারোন্টার থাকা লাগবে এবং তাদের অবশ্যই পর্যাপ্ত সম্পদ থাকা লাগবে যা দিয়ে লোন পরিসোদ করা যাবে। 

ইসলামী ব্যাংক থেকে প্রবাসী লোন নিতে প্রয়োজনিয় কাগজপত্র

ইসলামী ব্যাংক প্রবাসী লোন পদ্ধতি 2023
  • আপনি লোন নিয়ে বিদেশে যান কিংবা আগে থেকেই বিদেশে থাকেন দুটি কেত্রেই আপনার ভিসা এবং পাসপোর্ট আপনার সাথে থাকা লাগবে এবং এগুলো যে কোন সময় প্রয়োজন হতে পারে। 
  • আপনি যদি দেশের বাহিরে থেকে ইসলামী ব্যাংক প্রবাসী লোন নিতে চান তাহলে প্রবাসে যে কোম্পানীতে কাজ করছেন সে কোম্পানীর নিয়োগ পত্র এবং মাসিক বেতনের রশিদ জমা দিতে হবে।
  • আপনার পাসপোর্ট সাইজের দু’কপি ছবি প্রয়োজন হবে, অবশ্যই নতুন ছবি তুলেছেন এমন ছবি হতে হবে পুরাতন ছবি দিলে নাও হতে পারে। 
  • আপনার জাতিয় পরিচয়পত্রের দু’কপি ফটোকপি জমা দিতে হবে। 
  • ইসলামী ব্যাংক থেকে প্রবাসী লোন নিতে আপনার দুজন স্বচ্ছল গ্যারেন্টার লাগবে। 

ইসলামী ব্যাংক প্রবাসী লোন-এর জন্য আবেদন করার নিয়ম

ইসলামী ব্যাংক প্রবাসী লোন পদ্ধতি 2023
  • আপনি যদি নিজের নামে লোন নিতে চান তাহলে আপনার ভোটার কার্ড প্রয়োজন হবে। যার নামে লোন তুলার জন্য ফর্ম করবেন তার ভোটার আইডি কার্ড থাকা লাগবে। 
  • তারপর লোনের জন্য আবেদন ফর্ম সংগ্রহ করুন এবং সবকিছু ঠিক মত ফর্ম ফিলাপ করুন। 
  • ফর্ম ফিলাপ করার পর প্রয়োজনিয় সকল কাগজপত্র যেমন ভিসার কপি ভোটার আইডি কার্ডের কপি এবং অন্যান্য সকল কিছু এটাছ করে জমা দিন। 
  • এতটুকুই আপনার কাজ, ফর্ম ফিলাপ করে বাকি সকল কাগজপত্র জমা দেওয়ার পর আপনার তথ্য গুলো ইসলামী ব্যাংক যাচাই করবে এবং আপনি যদি লোন পাওয়ার জন্য যোগ্য হোন তাহলে আপনাকে লোন প্রধান করা হবে।
  • ফর্ম ফিলাপ করতে কিছু বিষয় কেয়াল রাখবেন আপনার এবং আপনার নমিনির সকল প্রয়োজনিয় কাগজপত্র ভালো করে দেখে কোন ভুল না করে সবকিছু এটাছ করুন তারপর জমা দিন।

উপসংহার

ইসলামী ব্যাংক প্রবাসী লোন পদ্ধতি – লোনের মাধ্যমে মানুষের অনেক কাজ সহজ হয়ে গেলেও আমাদের কখনো লোন দেওয়া কিংবা নেওয়া উচিত নয় কারণ লোন দেওয়া কিংবা নেওয়া সুদ যা ইসলামে খুব খরা ভাবে নিশেদ করা হয়েছে। তাই আমি বলব প্রিয় ভাই লোন না নিয়ে সহজে কিছু না করে একটু করে হলেও চেষ্টা করুন তবে লোন নিবেন।

Leave a Comment

x