ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড 2023 | Smart Nid Card Download BD

ভোটার আইডি কার্ড বা এনআইডি কার্ড একজন ব্যক্তির দেশের নাগরিকত্বের প্রমাণ। একটি পরিচয়পত্র দেশের সকল মানুষের বৈধ বসবাসের প্রমাণ।

বর্তমানে, প্রত্যেকটা কাজের সময় একজন ব্যক্তির আইডি চেক করা হয়। তাই বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে প্রত্যেকেরই এই জাতীয় পরিচয়পত্র থাকতে হবে।

আরও পড়ুন অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ড চেক করার সহজ নিয়ম

আপনি কি নতুন ভোটার নিবন্ধন করেছেন? তাহলে আপনি ভোটার নিবন্ধন স্লিপ নম্বর বা NID কার্ড নম্বর দিয়ে আপনার ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারেন। এখানে আমি আপনাদের দেখাবো কিভাবে আপনার মোবাইল ফোন দিয়ে অনলাইনে NID কার্ড বা Nid Card Download করবেন।

ফরম নম্বর দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার নিয়ম

অনলাইনে আপনার Nid Card Download করতে, https://services.nidw.gov.bd/nid-pub/ লিঙ্কে যান এবং জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর, জন্ম তারিখ লিখে আপনার অ্যাকাউন্ট নিবন্ধন করুন। . আপনি অ্যাকাউন্ট তৈরি করার পরে, আপনার অ্যাকাউন্টের ড্যাশবোর্ড থেকে আপনার ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারেন। কিভাবে নিবন্ধন করতে হয় এবং ডাউনলোড করতে সেই সেটাই ধাপে ধাপে দেখাব আজকে।

জাতীয় পরিচয় পত্র ডাউনলোড করার উপায়

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে আপনি যদি বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইট থেকে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের একটি অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে চান তবে আপনাকে নীচের পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করতে হবে।

জাতীয় পরিচয় পত্র অনলাইন কপি ডাউনলোড করার ধাপসমূহ

এখন আপনি আপনার আইডি কার্ড বা ভোটার কার্ড অনলাইনে ডাউনলোড করতে পারবেন এবং আপনার শহর বা বাজার থেকে টা প্রিন্ট করে যখন খুশি ব্যবহার করতে পারবেন। 

আরও পড়ুন অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন

আজকে আমরা মাত্র কয়েক ধাপে অনলাইনে জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি ডাউনলোড করার সমস্যার সমাধান করেছি। তাই আপনি মাত্র কয়েকটি ধাপ অনুস্মরণ করেই আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র ডাউনলোড করতে পারবেন এবং ব্যবহার করতে পারেন। 

Nid Card Download করতে যা যা প্রয়োজন হবে 

আমরা যে আইডি আপলোড করতে চাই সেটার কিছু তথ্য আমাদের দরকার। নীচে আপনি আপনার আইডি কার্ড অনলাইন থেকে ডাউনলোড করার জন্য প্রয়োজনীয় সমস্ত তথ্য দেখতে পাবেন।

  • ভোটার আইডি কার্ড নাম্বার কিংবা ভোটার স্লিপ নাম্বার
  • জন্ম তারিখ
  • মোবাইল ফোন নাম্বার (নতুন ভোটার নিবন্ধন করার সময় যেই নাম্বার দিয়েছিলেন)
  • আপনার বর্তমান ঠিকানা (নতুন ভোটার নিবন্ধন করার সময় যেই নাম্বার দিয়েছিলেন)
  • আপনার স্থায়ী ঠিকানা (নতুন ভোটার নিবন্ধন করার সময় যেই নাম্বার দিয়েছিলেন)
  • যে ব্যক্তি ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করবেন থাকে স্বয়ং উপস্থিত থাকতে হবে। 

আমরা আশা করি আপনার Nid Card Download করার জন্য আপনার প্রয়োজনীয় সকল তথ্য রয়েছে। 

শুধুমাত্র জাতীয় কার্ডধারীরা অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন। কারণ Nid Card Download করতে ফেসিয়াল রিকগনিশন প্রয়োজন।

ভোটার আইডি কার্ড অনলাইন কপি ডাউনলোড

এখন আমরা ভোটার আইডি কার্ডের অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে প্রস্তুত। ধরে নিলাম আপনার ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার জন্য প্রয়োজনীয় সমস্ত তথ্য রয়েছে।

Nid Card Download করার ওয়েব সাইটে প্রবেশ

NID Card Download করার প্রথম ধাপ হল বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশন থেকে ভোটার তথ্য পাওয়া। Services.nidw.gov.bd

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার জন্য নিবন্ধন

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড

আমাদের আইডি কার্ড অনলাইনে আপলোড করার জন্য, আমাদের বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে নিবন্ধন করতে হবে।

যেহেতু আমরা আইডি কার্ড রেজিস্ট্রেশন সাইটে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করিনি, তাই আমাদের “রেজিস্টার” বাটনে ক্লিক করে চালিয়ে যেতে হবে।

জাতীয় পরিচয় পত্র তথ্য যাচাই

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড

NID কার্ড বা জাতীয় কার্ড ডাউনলোড করার এই পর্যায়ে, আপনাকে আপনার ভোটার কার্ডের তথ্য প্রদান করতে হবে। এই ধাপে আপনার আইডি কার্ড নম্বর বা আইডি কার্ড তৈরি করার সময় আপনি যে ফর্ম নম্বরটি পেয়েছেন তার প্রয়োজন হবে।

আপনি যদি আমাদের নির্দেশিত নিয়মগুলি অনুসরণ করেন তবে আপনি একটি ফর্ম দেখতে পাবেন যেখানে আপনার কিছু তথ্য প্রধান করতে হবে, যেমনটি উপরের ছবিতে দেখানো হয়েছে। প্রথমে “ভোটার আইডি কার্ড নম্বর” বা “ফর্ম নম্বর” লেখা বাক্সটি আসে। এই বক্সে অবশ্যই আপনার আইডি কার্ড নম্বর বা ফর্ম নম্বর লিখতে হবে।

পরবর্তী ধাপে, জন্মের দিন, মাস এবং বছর লিখতে হবে এবং শেষে ক্যাপচা ভেরিফাই করে “পাঠান” বাটনে ক্লিক করতে হবে।

ভোটার আইডি কার্ড ঠিকানা যাচাই

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড

আপনার আইডির অনলাইন কপি আপলোড করার আগের ধাপটি সঠিকভাবে সম্পন্ন হলে, আপনাকে এখন আপনার বর্তমান ঠিকানা এবং স্থায়ী বাসস্থান লিখতে হবে। 

এই ধাপে, আপনাকে প্রথমে বিভাগ, জেলা এবং উপজেলা নির্বাচন করতে হবে। যদি আপনার বর্তমান ঠিকানা এবং আপনার স্থায়ী ঠিকানা ভিন্ন হয়, তাহলে আপনাকে অবশ্যই আলাদাভাবে তথ্য প্রদান করতে হবে। যদি এটি একই হয় তবে আপনাকে অবশ্যই বর্তমান ঠিকানা এবং স্থায়ী ঠিকানা একই প্রদান করতে হবে। 

Nid Card Download মোবাইল নাম্বার যাচাই

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড

আশা করি আপনি প্রতিটি পদক্ষেপ সঠিকভাবে অনুসরণ করতে পারবেন। সবকিছু ঠিক থাকলে, ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার এই পর্যায়ে, আপনাকে আপনার মোবাইল নম্বর যাচাই করতে বলা হবে।

আপনার ভোটার আইডি কার্ড বা ভোটার কার্ডের জন্য আবেদন করার সময় আপনার দেওয়া নম্বরে একটি SMS পাঠানো হবে। এসএমএসটিতে একটি 6-সংখ্যার কোড রয়েছে। আপনাকে এই কোডটি লিখতে হবে এবং সাবমিট বাটনে ক্লিক করতে হবে।

বিঃদ্রঃ. যদি কোনো কারণে আপনার কাছে এই নম্বরটি না থাকে, আপনি এটি পরিবর্তন করতে পারেন এবং একটি ভিন্ন নম্বর ব্যবহার করতে পারেন।

জাতীয় পরিচয় পত্র অনলাইন কপি ডাউনলোড

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড

অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে হলে কার্ডধারীকে উপস্তিত থাকতে হবে। আপনি যদি উপরের সমস্ত পয়েন্টগুলি সঠিকভাবে অনুসরণ করেন তবে আপনি দেখতে পাবেন যে ফেসিয়াল রিকগনিশন করতে বলা হয়েছে।

আপনাকে প্লে স্টোর থেকে NID Wallet অ্যাপটি ইনস্টল করতে হবে। আর যার NID কার্ড আপনি ডাউনলোড করতে চান তার মুখ স্ক্যান করে ভেরিফাই করতে হবে। একবার ফেসিয়াল ভেরিফিকেশন সম্পন্ন হলে, আপনি ভোটারের আইডির সমস্ত বিবরণ দেখতে পাবেন এবং আপনার আইডির একটি অনলাইন কপি আপলোড করতে পারবেন।

ভোটার আইডি কার্ড চেক

আপনি যদি একটি নতুন আইডি কার্ড তৈরি করে থাকেন, যেমন একটি নতুন আইডি কার্ডের জন্য আবেদন করেছেন, কিন্তু আপনার ভোটার আইডি কার্ড এখনও অনলাইনে আছে কিনা তা নিশ্চিত নন, তাহলে আপনি ভোটার আইডি কার্ড চেক করতে পারেন।

ভোটার পরিচয় যাচাই করা খুবই সহজ। আপনি যখন একটি আইডি কার্ডের জন্য আবেদন করবেন, আপনি একটি রসিদ বা নম্বর সহ একটি ফর্ম পাবেন।

আপনার এনআইডি কার্ড বা জাতীয় কার্ড অনলাইনে থাকলে, আপনি পরবর্তী ধাপে যেতে পারেন। যদি আপনার NID কার্ডটি এখনও অনলাইনে না থাকে তবে তথ্যটি ভুল হিসাবে প্রদর্শিত হবে।

সংশোধিত ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড

অনেকেই তাদের ভোটার আইডি সংশোধনের জন্য পুনরায় আবেদন করছেন। আপনার ভোটার আইডি কার্ড পরিবর্তন করা হলে, আপনি আপনার মোবাইল ফোনে একটি SMS পাবেন এবং একবার সংশোধন হলে সেটা অনলাইন থেকে ডাউনলোড করতে পারবেন। 

সংশোধিত ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে, প্রথম ধাপ থেকে পর্যায়ক্রমে সকল ধাপগুলি অনুসরণ করুন এবং আপনার অ্যাকাউন্টের ড্যাশবোর্ড থেকে Nid Card Download করুন। 

আমি আশা করি আজকের পোস্টটি আপনাকে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার নিয়ম সম্পর্কে সঠিক তথ্য দিয়েছে, তবে আপনার যদি সেগুলি বুঝতে সমস্যা হয় তবে অনুগ্রহ করে কমেন্ট করুন এবং আমি আপনার সমস্যার সমাধান করার চেষ্টা করব।

ভোটার আইডি কার্ড কিভাবে বানাবো?

আপনার বয়স 16 বছর বা তার বেশি হলে, আপনি নতুন ভোটার আইডি কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারেন।

কিভাবে জাতীয় পরিচয়পত্র ডাউনলোড করব?

আপনার ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে service.nidw.gov.bd এ যান। আপনি আপনার ভোটার রেজিস্ট্রেশন ফর্ম নম্বর বা ভোটার আইডি কার্ড নম্বর দিন, জন্ম তারিখ এবং মোবাইল ফোন নম্বর দিন, তারপর ফেস ভেরিফিকেশন করে” নিবন্ধন সম্পন্ন করুন” তারপরেই আপনার Nid Card Download করতে পারবেন।

Leave a Comment

x